গোপন পরিচয় একটি রোমান্টিক প্রেমের কাহিনী


আচ্ছা অন্য কারো সাথে আমার বিয়ে
হয়ে গেলে তুমি কি করবে?
--ছেলেটা উত্তর দিলো, ভুলে যাবো
ছেলেটার উত্তর শুনে মেয়েটি রাগে
অন্যদিকে মুখ ঘোরালো।

ছেলেটি আবার বললঃ
--তুমিও আমাকে ভুলে যাবে, এটা সবচেয়ে
বড় কথা। আমি যত দ্রুত তোমাকে ভুলে
যাবো। তার চেয়েও বেশি দ্রুত
তুমি আমাকে ভুলে যাবে।

প্রেমিকা প্রশ্ন করলোঃ
--কি রকম?
ছেলেটি বলতে শুরু করলঃ
"মনে করো বিয়ের প্রথম তিনদিন তুমি এক
ধরনের ঘোরের মধ্যে থাকবে। শরীরে
গয়নার ভার, মুখে মেকআপ এর প্রলেপ,
চারেদিক থেকে ক্যামেরার ফ্লাশ,
মানুষের ভিড়। তুমি চাইলেও তখন আমার
কথা মনে করতে পারবে না। ''আর আমি তখন
তোমার বিয়ের খবর পেয়ে হয়ত কোন বন্ধুর
সাথে উল্টাপাল্টা কিছু খেয়ে পরে
থাকবো। আর একটু পর পর তোমাকে
হৃদয়হীনা বলে
গালি দিবো। আবার পরক্ষনেই পুরাতন
স্মৃতির কথা মনে করে বন্ধুকে জড়িয়ে ধরে
কাঁদবো। "বিয়ের পরের দিন তোমার আরো
ব্যস্ত সময় কাটবে। স্বামী আর মিষ্টির
প্যাকেট, এই দুটো হাতে নিয়ে তুমি
বিভিন্ন আত্মীয় স্বজনের বাসায় ঘুরে
বেড়াবে।

আমার কথা তখন তোমার হঠাৎ হঠাৎ মনে
হবে। এই যেমন স্বামীর হাত ধরার সময়, এক
সাথে রিক্সায় চড়ার সময়। আর আমি তখন
ছন্নছাড়া হয়ে ঘুরে বেড়াব। আর বন্ধুদের
বলবো, বুঝলি দোস্ত, জীবনে প্রেম
ভালোবাসা কিছুই নাই। "পরের একমাসে
তুমি হানিমুনে যাবে, নতুন বাসা পাবে,
শপিং, ম্যাচিং,শত প্লান, আর স্বামীর
সাথে হালকা মিষ্টি ঝগড়া। তখন তুমি
বিরাট সুখে,
হঠাৎ আমার কথা মনে হলে ভাববে, আমার
সাথে বিয়ে না হয়ে বোধ হয়
ভালোই হয়েছে। আমি ততদিনে বাপ, মা,
বন্ধু কিংবা বড় ভাইয়ের ঝাড়ি খেয়ে
মোটামোটি সোজা হয়ে গিয়েছি।
ঠিক করেছি কিছু একটা করতে হবে,
তোমার চেয়ে একটা সুন্দরী মেয়ে বিয়ে
করে
তোমাকে দেখিয়ে দিতে হবে।

সবাইকে বলবো, তোমাকে ভুলে গেছি।
কিন্তু তখনও মাঝরাতে তোমার
এসএমএসগুলো বের করে পড়বো আর
দীর্ঘশ্বাস ছাড়ব। "পরের দুই বছর পর তুমি
আর কোন প্রেমিকা কিংবা
নতুন বউ নেই। মা হয়ে গিয়েছো।
পুরাতন প্রেমিকের স্মৃতি, স্বামীর আহ্লাদ,
এসবের চেয়েও বাচ্চার ডায়াপার, পিটার
এসব নিয়ে বেশি চিন্তিত থাকবে।

অর্থাৎ তখন আমি তোমার জীবন থেকে
মোটামুটি পারমানেন্টলি ডিলিট হয়ে
যাবো। এদিকে আমিও একটা কাজ পেয়েছি।
বিয়ের কথা চলছে। মেয়েও পছন্দ হয়েছে।
আমি এখন ভীষণ ব্যাস্ত।

এবার সত্যিই আমি তোমাকে ভুলে
গিয়েছি।শুধু রাস্তা ঘাটে কোন কাপল দেখলে
তোমার কথা মনে পড়বে। কিন্তু তখন আর
দীর্ঘশ্বাসও আসেবে না।

এতদূর পর্যন্ত বলার পর ছেলেটি দেখলো
প্রেমিকা ছলছল চোখ নিয়ে
ছেলেটির দিকে তাকিয়ে আছে।মুখে কোন কথা নেই। ছেলেটি ও চুপচাপ।
একটু পর প্রেমিকা বললোঃ
"তবে কি সেখানেই সব শেষ?ছেলেটি বলল, না।

কোন এক মন খারাপের রাতে তোমার
স্বামী নাক ডেকে ঘুমুবে। আমার বউও ব্যস্ত
থাকবে নিজের ঘুম রাজ্যে।শুধু তোমার আর আমার চোখে ঘুম থাকবেনা। সেদিন অতীত আমাদের দুজনকে নিঃশ্বদে কাঁদাবে। সৃষ্টিকর্তা ব্যাতিত যে কান্নার কথা কেউ জানবেনা

Post a Comment (0)
Previous Post Next Post